ইন্দোর

ইন্দোর মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ শহর। শুধু শহরই নয়। এটি মধ্যপ্রদেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলাও বটে। মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের একটি প্রধান পর্যটন আকর্ষণ হল ইন্দোর।ইন্দোর জেলা ও ডিভিশনের প্রধান সদর হল ইন্দোর। শহরটিকে বলা হয় মধ্যপ্রদেশের অন্যতম প্রধান শিক্ষার পীঠস্থান। এটি এই রাজ্যের অন্যতম প্রধান বাণিজ্যিক ও প্রশাসণিক দপ্তর। এটি মধ্যপ্রদেশের পশ্চিম দিকে অবস্থিত। মালওয়া মালভূমির উপর এই শহরটি অবস্থিত। ইন্দোর শহরটি উজ্জয়িনী থেকে ৫৬ কিলোমিটার দূরে,  উদয়পুর থেকে ৩৯১ কিলোমিটার দূরে,  আমেদাবাদ থেকে থেকে ৩৯০ কিলোমিটার দূরে, চিতরগড় থেকে ৩২৪ কিলোমিটার দূরে, কোটা থেকে ৩২০ কিলোমিটার দূরে, মান্ডু থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে, সাঁচি স্তূপ থেকে ২৩৮ কিলোমিটার দূরে, ওঙ্কারেশ্বর থেকে ৭৮ কিলোমিটার দূরে  অবস্থিত।  এটি একটি বৃহৎ ও ঘন জন বসতি পূর্ণ শহর। এটিকে ভারতের ১০০ টি স্মার্ট শহরের অন্তর্গত করা হয়েছে। প্রচুর পর্যটক এখানে ভ্রমণে আসেন।  এখানে প্রচুর আকর্ষণীয় ঘোরার জায়গা বর্তমান। সারা বছর প্রচুর পর্যটক এখানে ঘুরতে আসেন। পর্যটকরা এখানে সপ্তাহান্তের ছুটি কাটানোর জায়গা হিসেবে ঘুরতে আসেন। এটি আশেপাশের কাছাকাছি বেশ কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্রের জন্য বিখ্যাত। এখানকার কাঁচ মন্দির, লাল বাগ প্যালেস,রাজওয়াদা,পাতালপানি জলপ্রপাত,মান্ডু,বামনিয়া কুন্ড,তিঞ্চা জলপ্রপাত, ছাত্রি বাগ, রয়্যাল মিউিয়াম সহ অনেক পর্যটন কেন্দ্র বর্তমান।

ইন্ডোরে ব্যবহৃত ভাষা : হিন্দি, বুন্দেলি ।

স্থানীয় পুলিশ স্টেশন

  • জুনি ইন্ডোর পুলিশ স্টেশন,যোগাযোগ-০৭৩১২৪৪৯৬৫১
  • প্যালাসিয়া পুলিশ স্টেশন,যোগাযোগ-০৭৩১২৪৯৯৪০
  • বনগঙ্গা পুলিশ স্টেশন, যোগাযোগ-০৭৩১২৭২০৩০০
  • আজাদ নগর পুলিশ স্টেশন, যোগাযোগ- ০৭০৪৯১০৮৫৩৭
  • তুকোগঞ্জ পুলিশ স্টেশন,যোগাযোগ-০৭৩১২৪৩৩১০০
  • অন্নপূর্ণাস পুলিশ স্টেশন
  • ছাত্রিপুরা পুলিশ স্টেশন
  • তেজাজি নগর পুলিশ স্টেশন
  • এ্যারোড্রাম পুলিশ স্টেশন
  • পুলিশ স্টেশন সারাফা
  • পুলিশ স্টেশন খাজরাঙ্গা

হসপিটাল

  • বোম্বে হসপিটাল (যোগাযোগ-০৭৩১২৫৫৮৮৬৬)
  • গোকুলদাস হসপিটাল (যোগাযোগ-০৭৩১২৫১৯২১২)
  •  সিএইচএস হসপিটাল,ইন্ডোর ( যোগাযোগ-০৭৩১৪৭৭৪৪৪৪)
  • মেডিপ্লাস হসপিটাল (যোগাযোগ-০৭৩১২৫৫৫৮৮৮)
  • গ্লোবাল এস এন জি হসপিটাল
  • সিনার্জি হসপিটাল

কাছাকাছি মার্কেট

  • নিউ মিনি সুপার মার্কেট
  • আর.বি টেক্সটাইল মার্কেট
  • পাটনিপুরা সব্জি বাজার
  • ঊষাতুল সুপার মার্কেট
  • ইন্ডোর মান্ডি
  • কোঠারি মার্কেট
  • নিউ সিয়াগন্জ মার্কেট
  • রিলায়েন্স মার্কেট,ইন্ডোর
  • অটলা বাজার চোর বাজার
  • জিনসি হাট ময়দান
  • খাজুরি মার্কেট
  • সিগমা সুপার মার্কেট
  • ইত্যাদী

কি কিনবেন?

  • হ্যান্ডলুমের জিনিষ
  • হাতের কাজের নানান জিনিষ
  • চান্দেরী শাড়ি
  • রঙীন গ্লাসের কাজ বিশিষ্ট খেলনা
  • মাহেশ্বরী শাড়ি , চামড়ার খেলনা
  • বিভিন্ন ধরনের নামকিন

পোস্ট অফিস

  • হেড পোস্ট অফিস (যোগাযোগ-০৭৩১২৫৭৩০৫০)
  • ইন্ডিয়া পোস্ট অফিস(যোগাযোগ-০৭৩১২৪৯২৫৩০)
  • জিপিও ইন্ডোর
  • তিলক নগর পোস্ট অফিস,যোগাযোগ-০৭৩১২৪৯২৮৯৮
  • সুদামা নগর পোস্ট অফিস (যোগাযোগ-০৭৩১২৪৮১০২৬)

হোটেল/গেস্টহাউস

ইন্ডোরে থাকার জন্য বেশ কিছু হোটেল ও গেস্টহাউস রয়েছে। ঘরের ভাড়া ৩০০ টাকা থেকে শুরু হয়ে ৩০০০ টাকা পর্যন্ত রয়েছে। এখানে যে হোটেল ও গেস্টহাউসগুলির নাম দেওয়া রয়েছে তার ভাড়া ৬০০ টাকার কম। এখানে আগে থেকে বুক না করলেও চলে।

বিভিন্ন হোটেল ও গেস্ট হাউসের নামঃ

  • আগরওয়াল গেস্ট হাউস
  • কিং প্যালেস ম্যারেজ হল
  • নিউ হোটেল উদয় প্যালেস
  • নরসিংহ ভাটিকা
  • বানজারা হোটেল
  • সিদ্ধেশ্বর ইন
  • যুবরাজ রেসিডেন্সি
  • হোটেল শ্রী নিবাস
  • হোটেল গিরি
  • প্রথু
  • হোটেল প্লেজার প্যালেস
  • এনআইসি প্যায়িং গেস্ট হাউস
  • মায়াঙ্ক রিসোর্ট
  • হোটেল প্রেস্টিজ
  • শ্রী রামকৃষ্ণ বাগ
  • হোটেল সায়েরা
  • জেএমসি স্টার ইন
  • হোটেল নীলকমল
  • হোটেল মঙ্গলম
  • হোটেল রামা ইন
  • রয়্যাল গ্যালাক্সি পার্ক
  • হোটেল অ্যাপেল ট্রী
  • হোটেল মদন মহল
  • শ্রী মাল হোটেল
  • হোটেল স্টে ইন
  • কম্ফোর্ট ইন
  • চামোন লজ

* হোটেল সক্রাংন্ত কোনো ভুল তথ্য বা কোনো ভুল ব্যবহার হয়ে থাকলে তার দায় ask2q.com এর উপর বর্তাবে না।

ইন্ডোরে যাওয়ার সেরা সময়

গরমে এখানে তাপমাত্রা খুব বেশী থাকে। তার সাথে যোগ হয় আদ্রতা। গরমে সাধারণত তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রী থেকে ৪০ ডিগ্রীর মধ্যে ঘোরাফেরা করে। কখনো কখনো তাপমা্ত্রা ৪৫ ডিগ্রী তে পৌছে যায়। শীতে গড় তাপমাত্রা ২-২০ ডিগ্রী পর্যন্ত হয়। শীতের তাপমাত্রা ঠান্ডা ও মনোরম। তাই শীতে ঘুরতে বেশী ভাল লাগবে।

গাড়িতে স্থানীয় ভ্রমণ

আপনি স্থানীয় আশেপাশের বা কিছুটা দূরের পর্যটন কেন্দ্রে ঘুরতে চাইলে সহজেই গাড়ী পেয়ে যাবেন। এখানে ৮০ কিলোমিটারের মধ্যে হলে ভাড়া ১৪৫০ থেকে ২২৭৫ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়া এখানে গাড়ীর ভাড়া এখানকার নির্দিষ্ট ধাপে ঠিক করা আছে। যেমন ক) টাটা ইন্ডিকা-প্রতি কিমি ৯.০০ টাকা, খ)মারুতি সুইফ্ট প্রতি কিমিতে ৯.৫০ টাকা, গ)ট্যাভেরা প্রতি কিমিতে ১১.৫০ টাকা,ঘ)ইনোভা প্রতি কিমিতে ১২ টাকা,ঙ) টয়টো ক্রিশটা প্রতি কিমিতে ১৪.৫০ টাকা। এর সঙ্গে চালকের জন্য বরাদ্দ ২৫০ টাকা। আপনি সারা দিন ধরে গাড়ীতে ঘুরতে পারেন।  অবশ্য দুরবর্তী ঘোরার ক্ষেত্রে টাকাটা একটু বেশী হতে পারে।

স্থানীয় পর্যটন কেন্দ্র

কাঁচ মন্দির

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল কাঁচ মন্দির। সমগ্র মন্দিরটি কাঁচ দিয়ে তৈরী। মন্দিরটির সর্বত্র জৈনদের ধর্মীয় মাহাত্ম্য গাঁথা রয়েছে। কিছু বিখ্যাত ও প্রতিভাবান শিল্পীর মাধ্যমে এই মন্দিরটি তৈরী হয়েছে। 

লাল বাগ প্যালেস

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল লাল বাগ প্যালেস। হোলকার শাসকরা এখানে বসবাস করতেন। এটি স্থাপত্যের অসাধারণ নিদর্শন। প্যালেসের ভেতরে একটি গোলাপের বাগান রয়েছে। খান নদীর তীরে এই প্যালেসটি অবস্থিত।যা প্রধান শহর থেকে ৩ কিমি দূরে অবস্থিত। প্যালেসটি ১৮৮৬ সালে টিকোজি রাও হোলকারের সময় তৈরী হয়েছিল। বর্তমানে এটি একটি মিউজিয়াম।এটি ইন্দোরের অন্যতম প্রধান আকর্ষন।     

মোহাদি জলপ্রপাত

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল মোহাদি জলপ্রপাত। প্রকৃতি প্রেমীরা অবশ্যই পাতালপানী জলপ্রপাতের সৌন্দর্য্যকে উপভোগ করবেন। এটি ইন্দোর থেকে ৩১ কিমি দূরে অবস্থিত। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর এটি ইন্দোরের একটি অসাধারন আকর্ষণীয় ঘোরার জায়গা।শুধু ঘোরাই নয়।এটি একটি জনপ্রিয় পিকনিক স্পটও।

রালামন্ডল বণ্যপ্রাণী সংগ্রহালয়

রালামন্ডল বণ্যপ্রাণী সংগ্রহালয়

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল রালামন্ডল বণ্যপ্রাণী সংগ্রহালয়।এটি মধ্যপ্রদেশের পুরাতন সংগ্রহালয়। নর্মদা নদীর তীরে এটি অবস্থিত। এখানকার জঙ্গলে বিভিন্ন ধরনের প্রাণী বর্তমান। যেমন বাঘ,সম্বর,হরিণ,রংবেরঙের প্রজাপতি,বিষাক্ত সাপ,বিভিন্ন পাখি ইত্যাদী।এটি ইন্দোর থেকে ১১ কিমি দূরে অবস্থিত।

পাতালপানী জলপাত

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল পাতালপানী জলপ্রপাত। প্রকৃতি প্রেমীরা অবশ্যই পাতালপানী জলপ্রপাতের সৌন্দর্য্যকে উপভোগ করবেন। এটি ইন্দোর থেকে ২৬ কিমি দূরে অবস্থিত। এটি ৩০০ ফুট উপর থেকে পড়ছে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর এটি ইন্দোরের একটি অসাধারন আকর্ষণীয় ঘোরার জায়গা।শুধু ঘোরাই নয়।এটি একটি জনপ্রিয় পিকনিক স্পটও।

রাজওয়াদা

ইন্দোরের অন্যতম প্রধান আকর্ষন হল রাজওয়াদা। এটি একটি অসাধরণ ও ঐতিহাসিক প্যালেস। এটি ইন্দোরের প্রধান শহরের অর্ভন্তরে অবস্থিত। ১৭৪৬ খ্রীস্টাব্দে হোলকর রাজ্যের প্রথম রাজা মালহার রাও হোলকার এটি তৈরী করেছিলেন। এর ভেতরে মালহারি মন্দির বর্তমান। প্যালেসের ভেতরে ঝর্ণা, কৃত্তিম জলপ্রপাত ও অসাধারণ স্থাপত্য বর্তমান। বর্তমানে প্যালেস হলটি কলা প্রদর্শন ও শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের আসরের জন্য ব্যবহৃত হয়।  

তিঞ্চা জলপ্রপাত

ইন্দোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল তঞ্চা জলপ্রপাত। এটি ইন্দোর থেকে ২৫ কিমি দূরে অবস্থিত। ইন্দোরের একটি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র এটি। ৩০০ ফুট উপর থেকে জলপ্রপাত পড়ছে। বর্ষাকালে এখানে জল উপচে পড়ে। চারিদিকে সবুজের সমারোহ।

মান্ডু

ইন্ডোরের কাছাকাছি অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল মান্ডু বা মান্ডবগড়। এটি ধড় জেলায় অবস্থিত। ইন্দোর থেকে এর দুরত্ব ৯৪ কিমি। মধ্য মধ্যপ্রদেশের একটি পুরাতন দূর্গ হল মান্ডু। এটি পাথড়ের প্রাচীর পরিবৃত। এখানে সমগ্র দূর্গ জুড়ে আফগান স্থাপত্য বর্তমান। এখানে দূর্গের ভেতরে হোসান শাহর সমাধি, জামি মসজিদ সহ অন্যান্য জিনিষ বর্তমান। এখানে দুটো লেকের ভেতরে পুরাতন জাহাজ মহল প্যালেস অবস্থান করছে।

বামনিয়া কুন্ড

ইন্ডোরের অন্যতম একটি অবশ্য দ্রষ্টব্য স্থান হল বামনিয়া কুন্ড। ইন্ডোর থেকে এর দুরত্ব ৫১ কিমি। ৩০০ ফুট উচ্চতা থেকে জল এখানে পড়ছে। এখানে জল নীচে পড়ার পর নীল রঙের পুল তৈরী হয়েছে।  কাছাকাছি গভীর জঙ্গল দ্বারা আবৃত। বামনিয়া কুন্ডে যেতে হলে ট্রেক করে যেতে হবে। ট্রেকিংএর সময় বিভিন্ন ধরনের পাখি দেখা যায়।

এছাড়াও এখানে আরো কিছু ঘোরার জায়গা বর্তমান।

  • যোগী বাধক জল প্রপাত
  • গিধিয়া কোহ জলপপাত
  • ছিদিয়া বাধক জলপ্রপাত
  • ছাত্রি বাগ
  • কানহা মিউজিয়াম
  • রয়্যাল মিউজিয়াম
  • হনুয়ানতিয়া
  • জনপভ
  • চোরাল দাম
  • ধরমপুরী
  • গান্ধী হল
  • গীতা ভবন
  • মেঘদূত গার্ডেন
  • ইন্দোর মিউজিয়াম
  • নেহেরু পার্ক
  • বিজাসেন তেকরী
  • ইন্দোর সাদা চার্চ
  • ইসকন মন্দির,ইন্দোর
  • পিপলিয়াপালা রিজিওনাল পার্ক
  •  ছাত্রিশ
  • খাজরাণা মন্দির
  • গোমত গিরি
  • বাবা গণপতি
  • অন্নপূর্ণা মন্দির
  • ইত্যাদী

কিভাবে পৌছাবেন

গাড়ি

ওঙ্কারেশ্বর/ভোপাল/উজ্জয়িনী/কোটা/উদয়পুর/চিতরগড়/সাতনা থেকে গাড়ি ভাড়া করে আপনি সহজেই পৌছে যাবেন ইন্ডোর। ঠিক উল্টো ভাবে আপনি ইন্ডোর থেকে সহজেই গাড়ীতে পৌছে যাবেন ওঙ্কারেশ্বর/ ভোপাল/ উজ্জয়িনী/ কোটা/উদয়পুর/ চিতরগড়/ সাতনা।রাস্তা কমবেশী ভাল। আপনি সহজেই নির্দিষ্ট জায়গায় পৌছিয়ে যাবেন।

বাস

এখানে ওঙ্কারেশ্বর/ভোপাল/উজ্জয়িনী/কোটা/উদয়পুর/চিতরগড়/সাতনা সহ আশেপাশের অঞ্চলে যেতে হলে বেশ কিছু স্টেট বাস সার্ভিস ও প্রাইভেট বাস সার্ভিস রয়েছে।

ট্রেন

কলিকাতা থেকে

শি্প্রা এক্সপ্রেস ২২৯১২(সুপার ফাস্ট) ..হাওড়া ..বিকেল ৫.৪৫- ইন্ডোর.. রাত ১.৩৫, সপ্তাহে ৩ দিন, সময় ৩১.৫০ ঘন্টা।

দিল্লী থকে ট্রেন

নিউ দিল্লী-  ইন্ডোর ইন্টার সিটি  সুপার ফাস্ট এক্সপ্রেস ১২৪১৬(সুপার ফাস্ট) নিউ দিল্লী.. রাত ১০.০০- ইন্ডোর.. সকাল ১১.৪০, সপ্তাহে প্রতিদিন, সময় ১৩.৪০ ঘন্টা।

মুম্বাই থেকে ট্রেন

অবন্তিকা সুপার ফাস্ট এক্সপ্রেস ১২৯৬১(সুপার ফাস্ট) মুম্বা সেন্ট্রাল.. রাত ৭.১০- ইন্ডোর সকাল ৯.১৫, সপ্তাহে প্রতিদিন, সময় ১৪.০৫ ঘন্টা।

ব্যাঙ্গালোর থেকে ট্রেন

যশবন্তপর-ডঃ আম্বেদকর নগর সাপ্তাহিক এক্সপ্রেস ১৯৩০২(এক্সপ্রেস) ..যশবন্তপুর..সকাল ১১.২০- ইন্ডোর সকাল ৫.৪০, সপ্তাহে ১ দিন, সময় ৪২.২০ ঘন্টা।

জলপাইগুড়ি থেকে ট্রেন

কামাখ্যা ইন্ডোর সাপ্তাহিক এক্সপ্রেস ১৯৩০৬(এক্সপ্রেস) নিউ জলপাইগুড়ি..দুপুর ১.৫০.. ইন্ডোর সকাল ৫.১৫, সপ্তাহে ১ দিন, সময় ৩৯.২৫ ঘন্টা।

বিমানবন্দর

ইন্ডোর শহর থেকে দেবী অহল্যাবাঈ হোলকার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দুরত্ব ৭ কিমি।

খাদ্য:

পুরী, ডাল, ভাত,বিভিন্ন সব্জী, তরকা, রাজমা,চিকেন,রুই মাছ, চাউমিন এখানে সহজলব্ধ। দামও বেশী নয়।  

স্পেশাল খাওয়ার:

  • ডাল বাফলা
  • শিক কাবাব
  • চাক্কি কি শাক
  • বিরিয়ানী পিলাফ
  • ভুট্টে কি খীস
  • রোগান জোস
  • পোহা জলেবী
  • ইত্যাদী

ইন্ডোরের কিছু রেস্ট্রুরেন্ট

  • ফোর সিজন রেস্ট্রুরেন্ট
  • গোল্ডেন ওভেন
  • সাইফি ফ্যামিলি রেস্ট্রুরেন্ট
  • অপ্সরা রেস্ট্রুরেন্ট
  • পাঞ্চালি ভেজ  রেস্ট্রুরেন্ট
  • অন্নপূর্ণা রেস্ট্রুরেন্ট
  • গগণ রেস্ট্রুরেন্ট এন্ড ফাস্ট ফুড
  • বিজি বার এন্ড  রেস্ট্রুরেন্ট
  • মেহেফিল বিশুদ্ধ সব্জী রেস্ট্রুরেন্ট
  • রিথভিলোক ভোজনালয়
  • হোটেল মাদনি দরবার
  • গুরু কৃপা রেস্ট্রুরেন্ট
  • এলকান্থ রেস্ট্রুরেন্ট
  • চটিওয়ালা রেস্ট্রুরেন্ট
  • শ্রী চটিওয়ালা রেস্ট্রুরেন্ট
  • বানানা লিফ
  • বিজয় চাট হাউজ
  • স্টার এন স্কাই
  • শ্রীমায় সেলিব্রিটি
  • পিন্ড বালুচি
  • মেডিটেরা
  • কাফে তেরেজা
  • ক্রাউন প্যালেস রেস্ট্রুরেন্ট ইন ইন্ডোর
  • জল- এ জঙ্গল রেস্ট্রুরেন্ট
  • বৃন্দাবন রেস্ট্রুরেন্ট
  • রং মারাঠি রেস্ট্রুরেন্ট
  • ফাগুন রেস্ট্রুরেন্ট
  • কেবাবসভিলে
  • নাফিজ রেস্ট্রুরেন্ট
  • অঙ্গারা
  • লিটল ইটালি রেস্ট্রুরেন্ট
  • হোটেল রাজহংস
  • ওাজ কাফে এন্ড রেস্ট্রুরেন্ট
  • দিল্লী দরবার
  • তরকা
  • নিউ দাওয়ার রেস্ট্রুরেন্ট
  • নাফিজ রেস্ট্রুরেন্ট
  • ইয়ং তরঙ্গ রেস্ট্রুরেন্ট
  • নিউ পুষ্পক রেস্ট্রুরেন্ট
  • মধুরাম সুইটস্ এন্ড নামকীন
  • হংকং চাইনিজ রেস্ট্রুরেন্ট
  • ভিদোরা দ্য টেরেস টেভার্ণ
  • অ্যালোহা- দ্য টেরেস গার্ডেন ( সিলভোটেল)
  • জনি হট ডগ
  • মিঃ বিন
  • ইত্যাদী

স্থানীয় যানবহন

  • অটো
  • টোটো
  • বাস
  • ক্যাব

কাছাকাছি ঘোরার জায়গা:

  • ভোপাল ১৯৩ কিমি
  • উজ্জয়িনী ৫৬ কিমি
  • উদয়পুর ৩৯১ কিমি
  • আমেদাবাদ ৩৯০ কিমি
  • চিতরগড় ৩২৪ কিমি
  • কোটা ৩২০ কিমি
  • পাঁচমারি ৩৪০ কিমি
  • মান্ডু ৯০ কিমি
  • সাঁচী স্তূপ ২৩৮ কিমি
  • বরোদা ৩৩৯ কিমি
  • ওঙ্কারেশ্বর ৭৮ কিমি
  • ইত্যাদী