(স্যোসাল মিডিয়ায় নানা ধরনের জোকস্ থাকে। সেখান থেকে সংগৃহিত।)

স্কুলে সংস্কৃতের ক্লাসে শিক্ষক এসেছেন। ক্লাস চলছে। সংস্কৃতের শিক্ষক খুব পন্ডিত। সকলে তাই বলে। শিক্ষকও নিজেকে তাই মনে করেন। সেই ক্লাসে একটি ছাত্র সংস্কৃতের মাস্টার মশাইকে জিজ্ঞাসা করলেন, স্যার একটা কথা বলব।

শিক্ষক: বল।

ছাত্র:  একটা সংস্কৃত শ্লোকের অর্থ যদি বলে দেন।

শিক্ষক: বলে ফেল।

ছাত্র: ‘ধষেনি নপামধু। ধষেনি নপাদ্যম’।

সংস্কৃতের শিক্ষক তো মহা ফাঁপড়ে পড়লেন। এত বছর সংস্কৃত পড়াচ্ছেন। লোকে তাকে সংস্কৃতের পন্ডিত হিসেবে সু্খ্যাতি করে। কিন্তু ছাত্রটি এমন একটা সংস্কৃত শ্লোক বলল যা তার জানা নেই। অথচ উত্তর দিতে না পারলে সম্মান থাকে না। পরে শিক্ষক বুদ্ধি করে বললেন, সময় মতো বলে দেব।

এদিকে শিক্ষক নানা বই,পুঁথি ঘেঁটেও এর মানে উদ্ধার করতে পারলেন না। কয়েকজন সংস্কৃতের পন্ডিত বাক্তিকে জিজ্ঞাসা করেও উত্তর পেলেন না।

পরের ক্লাসে ছাত্রটি আবার শিক্ষককে শ্লোকটির কথা মনে করিয়ে দিলেন।

শিক্ষক তাকে জিজ্ঞাসা করলেন,তুমি এ শ্লোকটি কোথায় পেয়েছ?

ছাত্র:হেড মাস্টারের ঘরের সামনে।

শিক্ষক তখন তাকে নিয়ে গেলেন হেড মাস্টারের ঘরের সামনে। সেখানে কাঁচের দরজায় লেখা আছে ‘ধূমপান নিষেধ। মদ্যপান নিষেধ’। ছেলেটি কাঁচের উল্টো দিক থেকে পড়েছিল। শিক্ষক তাকে বুঝিয়ে দিতেই সবাই হেসে উঠল।