প্রতিটি মহিলা বা মেয়েরাই চায় সবাই তার দিকে মুগ্ধ দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকুক। এজন্য তারা ত্বকের যত্নে যথেষ্ট সচেতন থাকেন। রূপচর্চা মানে শুধু মুখের যত্ন নয় , হাত, পা, চুল মিলিয়ে সবকিছুর পরিচর্যা । রাতে পরিচর্যা করলে ত্বক বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ পায়। রোদে বের হওয়া হয় না বলে ত্বকে ব্যবহৃত ফেসপ্যাক বেশি সময় ধরে কাজ করে। ফেসপ্যাক লাগানোর আগে অবশ্যই মুখ ভাল মতো পরিষ্কার করে নেবেন। অনেকে ভাবেন মুখেই তো ফেসপ্যাক লাগাবো, তাতে আবার পরিষ্কার করার কী দরকার! এটা ভুল ধারণা, লাগানোর আগে মুখ পরিষ্কার করলে ফেসপ্যাক ভাল কাজ করে। ত্বক ফর্সা ও পরিষ্কার করার জন্য রাতে ঘুমানোর আগে এই ফেসওয়াশ টি মুখে ব্যবহার করুন , আপনার ত্বক পরিষ্কার হওয়ার পাশাপাশি অনেক ফর্সাও হবে। আপনার ত্বক এতই পরিষ্কার, উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত দেখাবে যে, আপনি নিজেও বিশ্বাস করতে পারবেন না ।

একটা বিষয় জানলে অবাক হবেন, পরিচর্যার পর রোদে বের হলে আপনার ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আমরা প্রায়ই ত্বকে লেবু ব্যবহার করি কিন্তু জানেন কি লেবু ব্যবহার করার পর রোদে বের হলে ত্বক পুড়ে যায়! তাই ভুলেও রোদে বের হওয়ার আগে লেবু ব্যবহার করবেন না। লেবু ত্বক পরিষ্কার করতে পারে খুব সহজেই , তবে রাতে ঘুমোতে যাবার আগে ব্যবহার করতে পারেন । আর , যত্ন রাতে নিলে চুল বেশি পুষ্টি পায়, আপনি যদি স্নানের আগে চুলে তেল লাগান, তাহলে বেশী  সময় রাখতে পারেন না , কিন্তু রাতে তেল লাগালে সারারাত , তেল চুলে পুষ্টি জোগাবে । আর তেল লাগানোর পর বাইরে বের হবেন না, এতে চুলে ধুলো-বালি আরও বেশি জমবে না ।

আবার যত্ন রাতে নিলে হাত-পায়ে ময়শ্চারাইজার ভাল মতো কাজ করে। হাত-পা পরিষ্কার করার পর অবশ্যই তেল, ভ্যাসলিন কিংবা গ্লিসারিন ময়শ্চারাইজার হিসাবে লাগাতে পারেন । কষ্ট করে রূপচর্চা করলেন আর সব কষ্ট বিফলে গেল তাই কি হয় বলুন! তাই সময় বের করে রাতে রূপচর্চা করুন। রূপচর্চা কম-বেশি সবাই করে। সাধারণত করা হয় দিনের বেলায়, বিউটিসীয়ান দের মতে, এটা একদম ভুল কাজ। তাহলে কখন করবেন ! রাতের বেলায় , ঘুমোতে যাবার আগে ।